চলার পথে এমনো তো হয়!(৬)

চলার পথে এমনো তো হয়!
Md Shahin Akter

মেয়ে ঘটিত একটা বিষয় নিয়ে শলাপরামার্শ নিতে হাজির হলাম আমার ভাইপো MD Raj Khan এর কাছে।সে তখন এই বিষয়ের উপর পিএইচডি করছে!আর আমি তখন অ,আ শিখছি মাত্র।সে শেখার ইতি টেনেছি এই ঘটনার পরে।আর কোন নতুন গল্পের শুরু হয়নি পরে।সে(রাজু) একটা কথা আমাকে বলেছিলো,”দেখ বন্ধুত্ব বেঁচে থাকে চিরদিন আর প্রেমিকা বেঁচে থাকে বিয়ের আগদিন পর্যন্ত। এখন তুই চিন্তা করে দেখ কোনটা রাখবি বন্ধুত্ব না প্রেমিকা কে?”
ভাবনার বিষয়,চিন্তা করতে হবে তাই দু’দিন সময় নিলাম।আমি আমার বন্ধু কমল(ছদ্মনাম) আর রাজু তিনজন মিলে এই কথা গুলো বলে উঠে চলে গেলাম।একাকিত্ব সময় কাটাতে লাগলাম কারও সাথে যোগাযোগ করলাম না দু’দিন।এই দু’দিনে একটা বুঝ আসলো যে, একা আসলে চলা যায় না একটা বন্ধু মহল দরকার।”একটা ভালো বই একশোটা বন্ধুর সমান আর একটা ভালো বন্ধু একটা লাইব্রেরির সমান।”কথাটা ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি এপিজে আবুল কালামের।আমারও তাই মনে হলো তাই সিদ্ধান্ত নিতে হলো বন্ধুর সাথে থাকবো।তবে সে আমাকে একটু ভুল বুঝলো কোন একটা বিষয়ে আজও জানতে পারি নাই?তাকে খুশি করাতে তার সাথে তার বিদ্যাপীঠে যাওয়া হলো সাথে তিন জন বন্ধুও ছিলো, তাদের নাম নাই বা প্রকাশ করি।তাদেরও ইচ্ছা আমাদের বন্ধুত্ব টিকে থাক,আর বেঁচে থাক আমাদের ভালোবাসা।তারা আমার মত ক্ষুদ্র শাহীন কে কত কত সাহায্য করেছে বা করছে তা আমি লিখে শেষ করতে পারবো না।আসলে আমাদের অনেক গুলো বন্ধুর দরকার নাই,একটা ভালো বন্ধু হলেই চলবে।আর সেটাই চাই।বন্ধু মহলে থাকে বিভিন্ন চাল চলনের বন্ধু,কেউ কারও মত না,থাকে ভিন্ন মত,থাকে নানান ধর্মের,থাকে নানান বর্ণের আবার থাকে ভিন্ন মত আদর্শের।তাই বলে কি বন্ধুত্ব থেকে শত্রুতা শুরু করে দিবো?তা নয়।সেই ভাবনা থেকে মেয়েলি বিষয়টা মিটমাট করা হলো।কিন্তু গোপনে সমান তালে খোঁজ খবর নেওয়া হতো।হঠাৎ মেয়েটার বিয়ে হয়ে গেলো আমাদের বন্ধুত্বের দূরত্ব বাড়তে থাকলো।কথা আগের মত হয় না, দেখা হলে বলি না বললে নয় তাই বলতে হয়।জীবনের প্রয়োজনে ছুটে চলতে হয় সকলের।সেই ছুটে চলার পথেও একজন ভালো বন্ধুর দরকার।আমার অনেকগুলো ভালো বন্ধু আছে।তাদের নিয়ে গর্ব করি।ফেসবুকের যুগে হয় তো বাড়ি বাড়ি গিয়ে কেউ খোঁজ খবর নিতে পারি না আগের মত।সবাই নানান কাজে মহা ব্যস্ত মহাকর্মে।তাই বলে ফেসবুকেও খোঁজ খবর যে নি না তা নয়।আধুনিক সভ্যতা আমাদের গ্রাস করছে।যে আড্ডা হতো গ্রামের কোন চার রাস্তা মাঠের মাঝে বসে আজ সেটা ফেসবুকে হয়।বড্ড আধুনিক জাতি হয়ে গেছি আমরা।
মেয়েলি বিষয় যখন বন্ধুত্বের সম্পর্কের মাঝে দেওয়াল হয়ে দাঁড়ায় তখন সেই দেওয়াল টপকানো খুবই কঠিন।একটা বন্ধুত্ব হারাবো আরও হারাবো একটা মেয়ে বন্ধুকে।তাই সিদ্ধান্ত আমার, আমি দু’জনকেই চাই।কারণ দু’জনই আমার ভালো বন্ধু।
সেটাই হলো তবে কিছু ত্যাগ করতে হয়।আর জ্ঞানীরা বলেছে,” ভোগে নয় ত্যাগে প্রকৃত সুখ।”
আমি সেই প্রকৃত সুখ অন্বেষণে বের হলাম।তারা আজও আছে আমার চোখের সামনে,আমার চারপাশে।হয় তো হঠাৎ আমিই চলে যাবো তাদের ছেড়ে। বুঝাতে পারবো না কত ভালোবাসি তোদের।ভালো থাকিস বন্ধু তোরা।
#প্রবাস_ডায়েরি।
#স্মৃতিগত

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s